স্পেনের করোনা পরিস্হিতি-১৩ এপ্রিল

আজকের কাতালোনিয়া:

• আজ কাতালোনিয়ায় মৃতের সংখ্যা গতকালের থেকে কিছু বেশি হলেও, আক্রান্তের সংখ্যা গত ১৫ মার্চের পর থেকে তুলনামূলক সবচে কম।
আজ ১৩ এপ্রিল (২৪ ঘন্টায়) কাতালোনিয়ায় মৃত্যুবরণ করেছে ১২৮জন। গতকাল মৃতের সংখ্যা রেজিস্ট্রি হয়েছিলো ৯৬ জন। গত পরশু সংখ্যাটি ছিলো ১১১ জনে। আজকে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা রেজিস্ট্রি করা হয়েছে আশাব্যাঞ্জকহারে কম। আজকে নতুন আক্রান্ত রেজিস্ট্রি করা হয় ৪৭১জন। গতকাল সংখ্যাটি ছিলো ৬৯৯জন।
• এ নিয়ে কাতালোনিয়ায় মোট মৃতের সংখ্যা ৩,৬৬৬ জন এবং আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫,১৯৭জন।

• আগামী কাল (১৪ এপ্রিল, মঙ্গলবার) বার্সেলোনায় ৫ লক্ষ মাস্ক বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে। পাবলিক ট্রান্সপোর্টের সব স্টেশনে দেয়া হবে না, তবে যে স্টেশনগুলোতে ট্রানজিট (এক লাইন থেকে আরেক লাইন চেঞ্জ করা যায় এমন) আছে, যেমন প্লাসা কাতালোনিয়া, প্লাসা স্প্যানিয়াসহ এ রকম স্টেশনসহ এবং যে স্টেশনে যথেষ্ট ভিড় থাকে এমন স্টেনশনগুলোতে দেয়া হবে। বার্সেলোনা সিটি করপোরেশনের ট্রান্সপোর্ট বিষয়ের কাউন্সিলর রোসা আলারকন জানান, বার্সেলোনাবাসীর সবার জন্য এই মাস্ক যথেষ্ট নয়। তাই কেউ বাসা থেকে গিয়ে মাস্ক না খোঁজার পরামর্শ দেন। তবে যারা স্বাভাবিকভাবে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ব্যবহার করে তারা স্বাভাবিক নিয়মেই সেগুলো পাবেন।

আজকের স্পেন:
• আজকেও স্পেনের আক্রান্ত ও মৃতের সূচক আশাব্যাঞ্জকহারে নিম্নমুখী। গত ২০ মার্চের পর আজকে সবচেয়ে কম আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড করেছে স্পেন।
আজ ১৩ এপ্রিল (গত ২৪ ঘন্টায়) মৃতের সংখ্যা রেজিস্ট্রি করা হয়েছে ৫১৭জন। গতকাল ছিলো ৬১৯জন এবং গতপরশু ছিলো ৫১০জন। আজকে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা রেজিস্ট্রি করা হয়েছে ৩,৪৭৭জন। এই সংখ্যা ২০ মার্চের পরে সবচেয়ে কম সংখ্যা। আর সংখ্যাটি গতকাল ৪,১৬৭জনে।
আজকে সুস্থ হয়েছেন ২৩৩৬। সব মিলে স্পেনে আজ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ৬৯ হাজার ৪৯৬ জন, মৃত্যুবরণ করেছে ১৭,৪৮৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৬৪,৭২৭ জন।

• আজ স্পেনে রাষ্ট্রীয় সতর্কতা জারির একমাস পূর্ণ হওয়ার দিনে লক্ষ লক্ষ মানুষ কর্মস্থলে যোগ দিয়েছে। নির্মাণ খাত, পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা, কল-কারখানা, ধাতব-শিল্প, শিপইয়ার্ড কর্মী, স্যানিটেশন ও নিরাপত্তা খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা দীর্ঘ একমাস পর কাজে যোগ দেয়া শুরু করলেন।
প্রধান পরিবহন কেন্দ্রগুলোতে আজ স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় মাস্ক বিতরণ করছেন।
তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, যারা সর্মস্থলে যাচ্ছেন তাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে। এতে যদি সর্বনিম্ন সংক্রমনও ঘটে, তবে পুনরায় কাজ শুরু করা যাবে না। আমরা পরিস্থিতি নজরে রাখছি।

• সরকার করোনা মহামারির কারণে, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন Empresa-র Autonomo ও IVAসহ অন্যান Impuestos পরিশোধ করার ক্ষেত্রে সিথিলতা আনার জন্য সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। যে সব প্রতিষ্ঠান বছরের ৬ লক্ষ ইউরোর কম Factura করেন সে সব প্রতিষ্ঠানে এই সব টেক্স এপ্রিল থেকে মে মাস পর্যন্ত স্থগিতাদেশ করার চিন্তা করছে। কাল মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) স্পেনের মন্ত্রীপরিষদ এই প্রস্তাবের বিলে অনুমোদন দেয়ার কথা রয়েছে।

• স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফার্নান্দো গ্র্যান্ডে-মার্লাস্কা আজকে ঘোষণা করেছেন, এখন থেকে ফার্মেসিগুলোতে সঙ্কট ছাড়াই মাস্ক পাওয়া যাবে। প্রাথমিক অবস্থায় সরবরাহের অপ্রতুলতার কারণে ফার্মেসিগুলো মাস্কশূন্য হয়ে পড়েছিলো। তবে এখন সরবরাহ বৃদ্ধি হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

• Castella A La Mancha তে এক ব্যক্তি তাদের বিল্ডিংয়ের প্রতিবেশী এক ডাক্তারকে বাসা থেকে বের হয়ে যেতে অনুরোধ করেন। ঐ প্রতিবেশী ডাক্তার সেই বিল্ডিংএ থাকেন এবং সেখান থেকেই Alcázar de San Juan হাসপাতালে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত মানুষদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছেন। ডাক্তারের ফ্ল্যাটের প্রবেশ দরজায় বাসা ছেড়ে যাবার অনুরোধ করা কাগজটি উক্ত প্রতিবেশী এঁটে রাখেন।
তিনি কাগজে অনুরোধ করে লেখেন, ”এখানে বাচ্চা ও বয়ষ্করা থাকেন”। এ জন্য ডাক্তারকে অনুরোধ করেন যেনো, ”ডাক্তার জিনিসটি বিবেচনা করেন।”
বিষয়টি উক্ত ডাক্তারের বন্ধু টুইট করলে টুইটারে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এই পরিস্থিতিতে করোনা মহামারির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা ডাক্তারের প্রতি সহানুভূতিশীল না হয়ে, এমন আচরণ মানুষকে হতবাক করে। স্পেনের সংবাদ মাধ্যমেও বিষয়টি বেশ আলোচিত হয়।

মিরন নাজমুল, স্পেন ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ