বাংলা কাগজকে আরোও সমৃদ্ধ করার প্রত্যয়ে র্ভাচুয়াল সভা অনুষ্টিত

তথ্য প্রযুক্তির নানা ব্যবহারের মাধ্যমে তথ্যবহুল বস্তুুনিষ্ট ও সত্য সংবাদ প্রকাশ ও প্রচারনার মাধ্যমে বাংলা কাগজকে বিশ্বের বাংলাভাষী পাঠকদের কাছে আরো জনপ্রিয় এবং গ্রহনযোগ্য করার প্রত্যয়ে যার যার অবস্থান থেকে আরো ভূমিকা রাখার অঙ্গিকার ব্যক্ত করে অনুষ্ঠিত হয়েছে ইংল্যান্ড,স্পেন ও বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত বাংলাভাষী সংবাদপত্র বাংলা কাগজের র্ভাচুয়াল সভা।

আমেরিকা,ফ্রান্স,পর্তুগাল,ইংল্যান্ড,স্পেন,সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাংলাদশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে থাকা বাংলা কাগজের পরিচালক,উপদেষ্টা,সম্পাদনা পরিষদ ও প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে গত ৮ ফেব্রুয়ারী যুক্তরাজ্য সময় রাত ১০ টায় এই র্ভাচুয়াল সভা অনুষ্টিত হয়। বাংলা কাগজের চেয়ারম্যান আজাদ আবুল কালামের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী আলহাজ্ব খসরু খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত সভা পরিচালিত হয় ইংল্যান্ডের বার্মিংহাম থেকে। সভায় যোগ দিয়ে সকলেই নানা সীমাবদ্ধতার মধ্যে করোনাকালীন সময়েও বাংলা কাগজের কার্যক্রম অব্যাহত থাকায় ধন্যবাদ জানান এবং ভবিষ্যতে প্রকাশনার ধারাবাহিকতার উপড় গুরুত্বারোপ করেন।

বাংলা কাগজের ষ্টাফ রিপোর্টার হাফিজ আহমেদ ক্বাবিরের পবিত্র কোরান তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া সভার শুরুতে চেয়ারম্যান আজাদ আবুল কালাম ও সেক্রেটারী আলহাজ্ব খসরু খান করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে বাংলা কাগজ পরিবারের সদস্যদের একত্রিত হতে না পারায় এই র্ভাচুয়াল সভা আহবানের কথা উল্লেখ করে বলেন,বাংলা কাগজ শুধুমাত্র একটি সংবাদপত্র নয় এটি একটি পরিবার এবং সামাজিক সংগঠনও। তারা করোনাকালীন সময়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন উপজেলায় আর্থিক সংকটে পড়া গনমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতাসহ অসহায় দরিদ্র মানুষদের সহায়তায় বাংলা কাগজের নানা সামাজিক কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরেন।

এসময় তারা বাংলা কাগজের বাংলাদেশ সংস্করন নিয়মিত প্রকাশনার ঘোষনা দেন এবং প্রিন্ট কপি ছাপানো ছাড়াও অনলাইন ভার্সনকেও আরো সমৃদ্ধ করার বিষয়ে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। সভায় যোগ দেওয়া সকলেই এই উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং সহযোগিতার হাত অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি দেন। ভার্চুয়াল সভায় করোনাকালীন সময়ের অভিজ্ঞতা নিয়েও মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয় এবং করোনাক্রান্তদের সুস্থতার জন্য বিশেষ দোয়া মাহফিলও আয়োজন করা হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন বাংলা কাগজের সাব এডিটর কবি ও লেখক মাফিদুল গণি মাহতাব। ভার্চুয়াল সভায় ডাইরেক্টরদের মধ্যে বার্মিংহাম থেকে বাংলা কাগজের ফাইনেন্স ডাইরেক্টর আলহাজ্ব আব্দুল কাদির আবুল ছাড়াও ম্যানচেষ্টার থেকে রুহুল আমিন চৌধুরী মামুন,কভেন্ট্রি থেকে সৈয়দ কবীর আহমেদ ও লন্ডন থেকে মিসেস সুফিয়া আলম যোগ দেন।

এছাড়া উপদেষ্টাদের মধ্যে স্কটল্যান্ড থেকে মোহাম্মদ লিটন,আমেরিকার নিউজার্সি থেকে গোলাম মোস্তফা চৌধুরী নিপন ছাড়াও যোগ দেন অধ্যাপক শাকিকুর রহমান চৌধুরী শাহীন,আনহার মিয়া,আমিনুর রহমান,আবু এস এম ওয়াহিদ,সমুছ মিয়া,মাষ্টার আব্দুল মোহিত,সংঙ্গীত শিল্পি ফিরোজ রাব্বানী,এমদাদুল হক লাভলু,জাহেদ উদ্দিন ও ষ্টাফ রিপোর্টার কবি আমিনা বেগম ও লন্ডন প্রতিনিধি শিমুল তাজবীর চৌধুরী।

বাংলা কাগজের ইলেকট্রনিক মিডিয়া টিমের মধ্যে স্পেন থেকে যোগ দেন বাংলা কাগজের ইউরোপ ব্যুরো প্রধান ও একাত্তুর টিভির নুরুল ওয়াহিদ, চীফ এক্সিকিউটিভ ও নিউজ২৪ টিভির সাহাদুল সুহেদ, স্পেন ব্যুরো প্রধান ও যমুনা টিভি এবং চ্যানেল এসের আফাজ জনি, স্পেন প্রতিনিধি ও এটিএন বাংলা‘র বনি হায়দার মান্না। ফ্রান্স থেকে যোগ দেন ফ্রান্স ব্যুরো প্রধান ও চ্যানেল আই প্রতিনিধি এনায়েত সুহেল, পর্তুগাল থেকে যোগ দেন বাংলা কাগজের পর্তুগাল ব্যুরো প্রধান বেলাল আহমেদ, আমেরিকা থেকে বাংলা কাগজের আমেরিকা ব্যুরো প্রধান ও টাইম টিভির উপস্থাপক মাহফুজুর রহমান আদনান। ইংল্যান্ড থেকে বাংলা কাগজের সাব এডিটর ও এলবি টুয়েন্ট্রি ফোর ডট টিভির উপস্থাপক কলামিষ্ট শেবুল চৌধুরী, বাংলা কাগজের ব্লাক কাউন্ট্রি প্রতিনিধি ও চ্যানেল আই বাংলাদেশের যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি আব্দুল আহাদ সুমন, বাংলা কাগজের বার্মিংহাম ব্যুরো প্রধান ও এটিএন বাংলা ইউকের জয়নাল ইসলাম, বাংলা কাগজের বিশেষ প্রতিনিধি ও টিভি ওয়ানের আমিরুল ইসলাম বেলাল, বাংলা কাগজের বিশেষ প্রতিনিধি ও আই অন টিভির লোকমান হোসেন কাজী, বাংলা কাগজের ষ্টাফ রিপোর্টার ও এলবি টুয়েন্ট্রি ফোর ডট টিভির জিয়াউর রহমান জিয়া, বাংলা কাগজের শেফিল্ড প্রতিনিধিও বাংলা টিভির খালেদ আহমেদ, বাংলা কাগজের নির্বাহী সম্পাদক ও চ্যানেল এসের রিয়াদ আহাদ এবং চ্যানেল এসের আহমেদ সুহেল প্রমূখ। আর মধ্যপ্রাচ্যের সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে অংশ নেন বাংলা কাগজের অনলাইন সংস্করনের প্রধান মাহবুবুর রহমান বাবু এবং বাংলাদেশ থেকে সুনামগঞ্জ জেলা ব্যুরো প্রধান শাহজাহান চৌধুরী।

ভার্চুয়াল সভায় বক্তারা বাংলা কাগজ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে মতামত ব্যক্ত করা ছাড়াও ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা নির্ধারনে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য উপস্থাপন করেন। সভায় জানানো হয় আগামী ৪ মার্চ বাংলা কাগজ প্রকাশনার ১৭ বছর পূর্ণ করে ১৮ বছরে পর্দাপন করবে এবং সে উপলক্ষ্যে করোনার কারনে কোনো উৎসব আয়োজন না করা হলেও একটি বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ